ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

কুমিল্লায় মহাসড়কে হেটেই বাড়ি ফিরছে মানুষ

প্রকাশ: ২০২০-০৫-১৯ ১৪:৫৪:৪২ || আপডেট: ২০২০-০৫-১৯ ১৪:৫৪:৪২

মাসুদ আলমঃ

কুমিল্লায় হেঁটেই ঢাকা থেকে বাড়ি ছুটছেন হাজার হাজার মানুষ। পুলিশের বিভিন্ন চেকপোস্টে যাত্রীপরিবহন ফিরিয়ে দেওয়া গেলেও হেঁটে চলা এসব মানুষকে ফেরানো যাচ্ছে না। কেউ ৮-১০ মাইল, আবার কেউ তার চেয়ে বেশি পথ হেঁটে বাড়ি ছুটছেন। এসব মানুষের মধ্যে নারী, শিশু, বৃদ্ধ এবং বৃদ্ধাও রয়েছেন। সড়কে যাত্রী পরিবহন না থাকায় নিজের কিংবা পরিবারের সদস্যদের ব্যক্তিগত সরঞ্জাম মাথায় নিয়ে দলেবলে হেঁটে যাচ্ছেন।

মঙ্গলবার কুমিল্লার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের হয়ে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষীপুরসহ দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের জেলাগুলোতে ফিরছে সাধারণ মানুষ। সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী মহাসড়কে গণপরিবহন না চলায় প্রাইভেট গাড়িতেই পথ ভেঙে ভেঙে ঈদ যাত্রায় ফিরছেন তারা। যেসব এলাকায় যানবাহন পাওয়া যাচ্ছে না সে জায়গা দীর্ঘপথ হেঁটেই পার হচ্ছে তারা।

মঙ্গলবার সকাল থেকেই ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরার জন্য কুমিল্লার মেঘনা-গোমতী সেতু হেঁটে পার হয়ে হাজার হাজার মানুষ ঈদের জন্য বাড়ি ফিরে। যারা প্রাইভেট গাড়ি নিয়ে দাউদকান্দি সেতু এলাকা পার হয় সেখানের টোলপ্লাজা থেকে অতিপ্রয়োজনীয় গাড়ি ছাড়া অন্যদের ফিরিয়ে দেয় পুলিশ। যে কারণে অর্ধ পথ যানবাহনে আসলেও পরের পথটুকু তারা হেঁটেই রওনা দেয়। অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে থ্রিহুইলারে এবং মোটরবাইকে করে ঝুঁকি নিয়েই অনেকেই ঢাকা থেকে দাউদকান্দি পৌঁছান বলে জানান পথচারীরা।

আসমা আক্তার নামে বাড়ি ফেরা এক নারী জানান, তিনি দাউদকান্দি গৌরিপুর যাবেন। এসেছেন ঢাকা থেকে। গোমতী সেতু অতিক্রম করা পর্যন্ত তিনি ৭ কিলোমিটার হেঁটেছেন। পরিবর্তন করেছেন একাধিক পরিবহন। কিছু দূর আসলেই পুলিশের যাত্রী নামিয়ে গাড়ি ফিরিয়ে দেন।

আবুল হাশেম নামে এক বৃদ্ধ জানান, তিনি ঢাকা থেকে আসছেন। কুমিল্লার মুরাদনগর যাবেন। ১০০ টাকা রাস্তায় তিনি সাড়ে আটশো টাকা ভাড়া দিয়েছেন। পরিবর্তন করছে হয়েছে ৫/৭টি পরিবহন। পকেটেও বেশি টাকা নেই। বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছা নিয়ে চিন্তায় আছেন।

কুমিল্লার হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রহমত উল্লাহ জানান, ঢাকা বা সীমান্তবর্তী কোন জেলা থেকে কুমিল্লায় কোন যাত্রী পরিবহনকৃত গাড়ি প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। সন্দেহভাজন কাভার্ডভ্যান, পিকআপ এবং ট্রাক চেকপোস্টে পুলিশ নিয়মিত চেক করছেন। যাত্রী নিয়ে পরিবহনগুলো পুলিশের চেকপোস্টের কাছে এসে স্বাভাবিক নিয়মে যাত্রী নামিয়ে ফিরে যাচ্ছে। আমরা পরিবহন আটকাতে পারি, কিন্তু হেঁটে চলা মানুষকে কিভাবে আটকাবো। তবে মহাসড়কে কোন যানজট নেই। নেই গাড়ির চাপ