ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০

কুমিল্লার লালমাইয়ে চাকরি দেয়ার নামে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়া ভূয়া সেনা কর্মকর্তা গ্রেফতার

প্রকাশ: ২০২০-০৬-১৮ ১০:৩৯:৫১ || আপডেট: ২০২০-০৬-১৮ ১৬:২০:৪২

 

নাফিউ জামান(লালমাই)ঃ

গত ১৭.০৬.২০২০ (বুধবার) সন্ধ্যায় লালমাই থানা পুলিশ সাগর বোগদাদী (৬৫) নামে এক প্রতারককে গ্রেফতার করে। এ সময় তার কাছ থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লগো সম্বলিত আইডি কার্ড, ভিজিটিং কার্ড ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্যাডে ভুয়া নিয়োগপত্র জব্দ করা হয়।

জানা যায়, সাগর বোগদাদী নিজেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ল্যাঃ জেঃ পরিচয় দিয়ে সেনাবাহিনীর পোশাক পরিহিত ছবি যুক্ত আইডি কার্ড দেখিয়ে সাধারণ মানুষের বিশ্বাস জন্মিয়ে সেনাবাহিনীর বিভিন্ন পদে ১১ জনকে নিয়োগ দেয়ার কথা বলে বিভিন্ন সময় লালমাই উপজেলার দত্তপুর গ্রামের হুমায়ুন কবির (৫০),সেলিম আহমেদ (৪০, মোঃ জহিরুল ইসলাম জুয়েল (২৫),ওমর ফারুক (২৫), রোকসানা আক্তার (২২) সহ বিভিন্ন জনের নিকট হতে চার লক্ষ দশ হাজার ছয়শত (৪,১০,৬০০) টাকা হাতিয়ে নেয়।

গতকাল ১৭.০৬.২০২০ তারিখ বিকালে প্রার্থীদের নিয়োগপত্র ও আইডি কার্ড সরবরাহের জন্য দত্তপুর গ্রামে এসে আইডি কার্ড সরবরাহ করলে প্রতিশ্রুত পদের সাথে আইডি কার্ডের পদ মিল না পাওয়ায় সন্দেহ হয় এবং চ্যালেঞ্জ করে আশেপাশের লোকজনকে খবর দিলে উক্ত প্রতারককে বহন করা নোহা মাইক্রোবাসের চালক দ্রুত গাড়ি চালিয়ে পালিয়ে যায়।

প্রতারণার শিকার ব্যাক্তিদের সন্দেহ আরো বেড়ে গেলে তারা থানায় সংবাদ দেয়।খবর পেয়ে লালমাই থানার টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উক্ত প্রতারককে সেনাবাহিনীর ভূয়া আইডি কার্ড, ভিজিটিং কার্ড ও সেনাবাহিনীর প্যাডে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করে যে দীর্ঘদিন ধরে সে ভূয়া সরকারি কর্মকর্তার (ল্যাঃ জেনারেল) পদের রুপ ধারণ করে ল্যাঃ জেনারেল এর পদ ব্যবহার করে ভূয়া আইডি কার্ড, ভিজিটিং কার্ড ও নিয়োগ পত্র তৈরী করে প্রতারণা পূর্বক টাকা আত্মসাৎ করে আসছে।তার বিরুদ্ধে কুমিল্লা কোতয়ালী থানায় ০২ টি,বুড়িচং থানায় ০১ টি এবং রাঙ্গামাটি সদর থানায় ০১ টি মামলা রয়েছে।

এছাড়া প্রতারণার স্বীকার দত্তপুর গ্রামের হুমায়ুন কবির (৫০) বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করলে লালমাই থানার মামলা নং- ০৬, তাং ১৮.০৬.২০২০ ইং, ধারা ১৭০/১৭১/৪২০/৩৪ পেনাল কোড রজু হয়।বর্তমানে মামলাটির তদন্ত চলমান রয়েছে।