ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

চাঁদপুরের অধ্যক্ষ প্রফেসর মনোহর আলীর ইন্তেকাল

প্রকাশ: ২০২০-০৫-১৮ ১৭:৩২:২১ || আপডেট: ২০২০-০৫-১৮ ১৭:৪০:৩৫

অনলাইন ডেস্কঃ

চাঁদপুরের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক ও সর্বজনশ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব অধ্যক্ষ প্রফেসর মনোহর আলী ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নাল্লিাহি…রাজিউন)। সোমবার বিকেলে ঢাকাস্থ ছেলের বাসা থেকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ফুসফুসের ক্যান্সারে ভুগছিলেন। মঙ্গলবার ভোরে (বাদ ফজর) চাঁদপুর বেগম জামে মসজিদে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর চাঁদপুর পৌর গোরস্থানে তাকে দাফন করার কথা রয়েছে।

প্রফেসর মনোহর আলী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের শিক্ষক হিসেবে বিভিন্ন কলেজে শিক্ষকতা করেন। চাকুরি জীবনের শুরুর দিকে দীর্ঘদিন সিলেটের এমসি কলেজের বাংলা বিভাগে অধ্যাপনা করেন তিনি।

প্রফেসর মনোহর আলী চাঁদপুর সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দীর্ঘদিন কর্মরত ছিলেন। পরে সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে পদোন্নতি পান। চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে তার সরকারি চাকুরি জীবন শেষ হয়। তার সুযোগ্য নেতৃত্বে ঝিমিয়ে পড়া চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে নতুন প্রাণের সঞ্চার হয়েছিল।

অত্যন্ত বিনয়ী, সজ্জন, সদালাপী ও মিষ্টভাষী এই শিক্ষাবিদ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের সাথেও সম্পৃক্ত ছিলেন। তিনি টিআইবি’র সহযোগী সংগঠন সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) চাঁদপুর জেলা কমিটির প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক ও দু’দফা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এই গুণী শিক্ষাবিদ তার হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীর কাছে পরম শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার মানুষ ছিলেন। ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে তার আচরণ ছিল বন্ধুসুলভ। চাঁদপুর সরকারি কলেজ বাংলা বিভাগের ছাত্র-শিক্ষকদের সংগঠন ‌’বাংলা ভাষা ও সাহিত্য পরিষদ’র অন্যতম উপদেষ্টা ও অভিভাবক ছিলেন তিনি।

তার পৈত্রিক বাড়ি কচুয়া উপজেলার রহিমানগর এলাকার তেতৈয়া গ্রামে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে স্বপরিবারে চাঁদপুর শহরে বসবাস করতেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৫ ছেলে, নাতি-নাতনিসহ বহু আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে সহকর্মী, ছাত্র-ছাত্রী, বন্ধু-শুভাকাঙ্খী, আত্মীয়স্বজন ও পরিচিতজনদের মাঝে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে।