ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

বিদ্যুৎ অভিযোগ নাম্বারে ফোন দিলে চাওয়া হচ্ছে টাকা,এজিএম বললেন, নাম্বার ক্লোন

প্রকাশ: ২০২২-১০-২৬ ১৭:০৪:৫৬ || আপডেট: ২০২২-১০-২৬ ১৭:০৪:৫৬

সৌরভ লোধ,কুমিল্লা(বরুড়া)প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলায় অধিকাংশ ইউনিয়নের বিদ্যুৎ নেই আজ ২ দিন।
ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে ঝড়ো হাওয়ার আগে ও পরে উপজেলার প্রায় সকল ইউনিয়নে বিদ্যুৎবিহীন হয়ে যাওয়ার ২৪ ঘণ্টা পর কিছু ইউনিয়নে বিদ্যুৎ সেবা দিতে পারলেও, এখনো বেশ কিছু ইউনিয়নের বিদ্যুৎ ফিরে আসেনি।

উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের কিছু গ্রাহক আমাদের জানান, বিদ্যুৎ বিহীন আজ ৭২ ঘন্টা আমরা।
ঘূর্নিঝড়ের আগের দিন থেকেই বিদ্যুৎ নেই আমাদের।
এর মধ্যে ব্যাপকভাবে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বিদ্যুৎ লাইনে। ঐ ইউনিয়নে প্রায় প্রতিটি ওয়ার্ডেই বিদ্যুৎ লাইন ছিড়ে মাটিতে পড়ে আছে।

এই বিষয়ে পয়েলগাছা সাব জোনাল অফিসের অভিযোগ নাম্বার (০১৭★★★★১০১২) ফোন দিলে সকলের থেকে চাওয়া হচ্ছে টাকা।
টাকা পরিশোধ করলে তারা দ্রুত ঠিক করে দিবে,এমন অভিযোগ দিচ্ছে ভুক্তভোগী গ্রাহকরা।

অভিযোগকারী সোহেল আহমেদ আমাদের জানান,আমি সকাল বেলা অভিযোগ নাম্বারে ফোন দিলে তারা আমার কাছ থেকে ৪২০ টাকা পরিশোধ করতে বলে।

আরেক অভিযোগকারী বলেন, আমাদের নলুয়া চাঁদপুর এলাকায় বেশ কিছু গাছ তারের উপর পড়ে আছে,অনেক মেইন লাইন ছিড়ে এখনো রাস্তার উপর পড়ে আছে,এই বিষয়ে আমি অভিযোগ নাম্বারে ফোন দিলে ওনারা আমার থেকে ৭২০ টাকা দিতে বলে।
আমি যখন জিজ্ঞেস করি কেনো টাকা দিবো,তখন রেগে গিয়ে আমাকে কল ফরওয়ার্ড নাম্বার ট্রাইপ করতে বলে,এবং আরো বলে এই নাম্বার ট্রাইপ করে তাদের কাছে অভিযোগ দিতে।

পল্লী বিদ্যুৎ অভিযোগ নাম্বারে ফোন দিলে তারা কি গ্রাহকদের কাছ থেকে লাইন মেরামত করা বাবদ টাকা নিতে পারে কিনা,এবং এই সময় রসিকতা করতে পারে কিনা, সে বিষয়ে পয়েলগাছা সাব জোনাল অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাহিদুল হাসান (এজিএম) কে ফোন দিয়ে জানতে চাইলে তিনি আমাদের জানান,
আমি বর্তমানে ট্রেনিংয়ে ঢাকায় অবস্থান করছি।
এই বিষয়ে আমি অনেক অভিযোগ পাচ্ছি আজ।
আমি কিছুক্ষন আগে জানতে পারি আমাদের অভিযোগ নাম্বারটি ক্লোন করা হয়েছে।কে বা কাহারা এমন করছে আমরা জানিনা,তবে আমরা থানায় অভিযোগের প্রস্তুতি নিচ্চি।
আর সবাইকে সচেতন হতে নোটিশ দিচ্চি।
কেউ যাতে টাকা না দেয় প্রতারক চক্রকে সে বিষয়ে সকলকে সজাগ থাকতে জানানো হচ্ছে আমাদের পক্ষ থেকে।