ঢাকা, আজ রোববার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

লালমাইয়ের ভূলইন দক্ষিণে ৭৫০ পরিবারকে ঈদ সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করেন কালাম মজুমদার

প্রকাশ: ২০২২-০৪-৩০ ২১:৪৪:০১ || আপডেট: ২০২২-০৪-৩০ ২১:৪৪:০১

গাজী মামুন :

ঈদ স্বাভাবিকভাবেই সবার জন্যে একটি আনন্দের দিন। তা সত্বেও সমাজের পিছিয়ে পড়া সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের মনে থাকে বিষাদের ছায়া। এদিনও প্রায় অভাব-অনটনেই কাটে তাদের ঈদ। তাই ঈদের দিনেও এলাকার অবহেলিত ও সুবিধাবঞ্চিত হতদরিদ্র পরিবারের মুখে মুখে হাসি ফোটানোর জন্যে বরাবরের ন্যায় এবারও এগিয়ে এসেছে আর্তমানবতার সেবায় দিন-রাত ছুটে চলা কুমিল্লা লালমাই উপজেলার ভূলইন দক্ষিণ ইউনিয়নের গোসাঁইপুষ্করণী গ্রামের বিশিষ্ট দানবীর আলহাজ্ব আবদুল করিম মজুমদারের সুযোগ্য উত্তরসূরী বাহরাইন প্রবাসী কালাম মজুমদার জামাল।

শুক্র ও শনিবার দুইদিন ব্যাপী ইউনিয়নের নয়টি ওয়ার্ডে গিয়ে স্বহস্তে ৭৫০ পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী ও নগদ অর্থ তুলে দেন আলহাজ্ব আবদুল করিম মজুমদার ও তাঁর পুত্র কালাম মজুমদার জামাল।

এসময় বিতরণকার্যে অংশ নেন তারই জেঠা আইয়ুব আলী মজুমদার, ভূলইন দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি তাজুল ইসলাম আর্মি, ভূলইন দক্ষিণ ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক হারুন অর রশিদ, লালমাই উপজেলা ছাত্রলীগ সদস্য ও ভূলইন দক্ষিণ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সাকিল ইসলাম সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের মেম্বার ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এ ব্যাপারে কালাম মজুমদার বলেন, আমার এ সকল কার্যক্রমের পেছনে কোনো উদ্দেশ্য নেই। উদ্দেশ্য একটাই এলাকার হতদরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত মেহনতি মানুষের পাশে দাঁড়ানো। আমি প্রথম অবস্থায় আমার গ্রাম ও ইউনিয়নের মানুষের জন্য কাজ করতেছি। পরবর্তীতে এ সেবা উপজেলা পর্যায়ে বৃদ্ধি করবো ইনশাআল্লাহ। আপনারা আমাকে একটু উৎসাহ প্রদান করবেন যাতে করে আমি আরও বড় পরিসরে মানুষের সেবা করার সুযোগ পাই।

ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপাততঃ আমার বাবার নামে কোনো ফাউন্ডেশন করবো না। সকলের মতামতের ভিত্তিতে উৎসাহ পেলে ইউনিয়ন ভিত্তিক একটি বড় ধরনের ফাউন্ডেশন করার ইচ্ছা রয়েছে।