ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১

এবার মুরাদনগর ও বাঙ্গরায় ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলা করলেন স্বেচ্ছাসেবকলীগের দুই নেতা

প্রকাশ: ২০২১-০৪-২৫ ২২:১৬:০৫ || আপডেট: ২০২১-০৪-২৬ ১২:০৫:৪৬

ফাহাদ রহমান, মুরাদনগর(কুমিল্লা) প্রতিনিধি:

কুমিল্লার দেবিদ্বারের পর এবার মুরাদনগর ও বাঙ্গরা বাজার থানায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ঢাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আওয়ামী লীগকে কটাক্ষ করে বক্তব্যের অভিযোগে জেলার মুরাদনগর উপজেলার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব সেলিম সরকার ও বাঙ্গরা বাজার থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক রাসেল মিয়া বাদী হয়ে রবিবার বাঙ্গরা বাজার থানায় মামালটি দায়ের করেন।

তবে দুটি মামলার বিষয়টি রবিবার রাতে নিশ্চিত করেছেন মুরাদনগর ও বাঙ্গরা থানা পুলিশ।

জানা যায, রবিবার দুপুরে মুরাদনগর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব সেলিম সরকার, যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল হাসান ও সভাপতি আতিকুর রহমান হেলাল অভিযোগ দায়ের করেন। পরে সদস্য সচিব সেলিম সরকারের অভিযোগটি আমলে নিয়ে মামলা দায়ের করেন।

মুরাদনগর উপজেলার স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য সচিব সেলিম সরকার মামলায় উল্লখ করেন, গত ১৪ এপ্রিল ফেসবুক লাইভে এসে সাবেক ঢাকসু ভিপি নুরুল হক নূর বলেছেন “আওয়ামী লীগ যারা করে তারা প্রকৃত মুসলমান নয় কাফের, তাদের ঈমান নেই। ঘুষ খায়, চাঁদাবাজি করে, মাদক ব্যবসা করে আবার নিজেদেরকে মুসলমান হিসেবে দাবি করে। তার এমন বক্তব্যে আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকদের ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত হানে।

সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টির জন্য তিনি উসকানিমূলক এমন আপত্তিকর ও আক্রমণাত্মক বক্তব্য দিয়েছেন। এরই প্রতিবাদের অংশ হিসেবে স্বেচ্ছাসেবক লীগের একজন কর্মী হিসেবে ভিপি নুরের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য মুরাদনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।
এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাদেকুর রহমান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব সেলিম সরকার, যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল হাসান ও সভাপতি আতিকুর রহমান হেলাল একই সময়ে অভিযোগ দায়ের করেন। পরে সদস্য সচিব সেলিম সরকারের অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা হয়েছে।

অপরদিকে বাঙ্গরা বাজার থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম আহবায়ক রাসেল মিয়া মামলায় উল্লখ করেন, গত ১৪ এপ্রিল ফেসবুক লাইভে এসে সাবেক ঢাকসু ভিপি নুরুল হক নূর বলেছেন “আওয়ামী লীগ যারা করে তারা প্রকৃত মুসলমান নয় কাফের, তাদের ঈমান নেই। ঘুষ খায়, চাঁদাবাজি করে, মাদক ব্যবসা করে আবার নিজেদেরকে মুসলমান হিসেবে দাবি করে। তার এমন বক্তব্যে আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকদের ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত হানে। সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টির জন্য তিনি উসকানিমূলক এমন আপত্তিকর ও আক্রমণাত্মক বক্তব্য দিয়েছেন। এরই প্রতিবাদের অংশ হিসেবে স্বেচ্ছাসেবক লীগের একজন কর্মী হিসেবে ভিপি নুরের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বাঙ্গরা বাজার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।
মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার।