ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১

“ব্রাহ্মণপাড়ায় সরকারি খাল দখল করে ফিশারিজ করার অভিযোগ”

প্রকাশ: ২০২১-০৪-২৪ ১২:১২:২৭ || আপডেট: ২০২১-০৪-২৪ ১২:১২:২৭

মোঃ সোহেল ইসলাম, ব্রাহ্মণপাড়া প্রতিনিধি:

কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার উত্তর চান্দলা-দধিখলা সড়কের সুলতান মেম্বারের বাড়ির সামনে সরকারি খাল দখল করে বাধ দিয়ে ফিশারিজ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই এলাকার ইউপি সদস্য সুলতান আহাম্মদ এ প্রতিনিধিকে জানান, উত্তর চান্দলা গ্রামের সিরাজ আলীর ছেলে ফিরোজ মিয়া(৮৪), আজগর আলীর ছেলে হারুন মিয়া(৬০) ও ফিরোজ মিয়ার ছেলে আবু কালাম(৪৫) লোকজন নিয়ে শুক্রবার সকালে সরকারি ৩৭ শতক খালের উপর বাধ দিয়ে ফিশারিজ করার চেষ্টা করলে আমি বাধা প্রদান করি। পানি নিষ্কাশনে বর্ষা মৌসুমে এ এলাকা প্লাবিত হবার সম্ভাবনা থাকতে পারে বিধায় আমি এই কাজে বাধা দিচ্ছিলাম।

এছাড়া সরকারি খালে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া বাঁধ দেয়ার কারো কোন অধিকার নেই। একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি আমার দায়িত্ব পালন করছিলাম। উল্লেখিত ব্যক্তিরা দীর্ঘদিন ড্রেজার মেশিন বসিয়ে মাটি কাটার ফলে সড়কের রিটার্নিং ওয়াল ভেঙ্গে পড়ে যায়। বাধ দেবার কাজে আমি বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে একই গ্রামের মনুমিয়া ও বিজন মিয়াসহ উল্লেখিত ব্যক্তিদের লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে আমাকে ও আমার পরিবারের লোকজনের উপর হামলা চালায়। পরে আত্মরক্ষার্থে আমি থানায় ফোন দিলে থানার এসআই সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে হামলাকারীরা ওই স্থান ত্যাগ করে।

ইউপি সদস্য আরো জানান, হামলাকারীরা সাময়িকভাবে কাজ বন্ধ রাখলেও তারা আবারো সন্ত্রাসী কায়দায় কাজ শুরু করতে পারে এবং আমাকে ও আমার পরিবারের উপর হামলা করতে পারে। জানতে চাওয়া হলে সরকারি খাল ভরাট কারি ফিরোজ মিয়া এ প্রতিনিধিকে বলেন, আমাদের জায়গার পাশে মরা খাল ভরাট করার উদ্যোগ নিয়েছিলাম। বর্তমানে তা ভরাট করা বন্ধ রেখেছি। তিনি বলেন, আমি কারো উপর কোন হামলা করিনি।