ঢাকা, আজ সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

দেবিদ্বারে অভিযোগের মধ্যদিয়ে মাতৃত্বকালীন ভাতা বিতরণ

প্রকাশ: ২০২১-০৩-২৩ ১৪:০৪:১৫ || আপডেট: ২০২১-০৩-২৩ ১৪:০৪:১৫

আবুল বাশার(দেবিদ্বার) কুমিল্লা

কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার উপজেলার ১০নং দক্ষিণ গুনাইঘর ইউপি’র ডিজিটাল সেন্টারে ব্যাংক এশিয়ার নানান অভিযোগ উপেক্ষা করে দ্বিতীয় ধাপের মাতৃত্বকালীন ভাতা গতকাল সোমবার বিকেল পর্যন্ত নিয়ম অনুসারে ৫টি ওয়ার্ডের ৪০জন নারীদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

ব্যাংক এশিয়া কুমিল্লা জেলা ম্যানেজার তারেকুল ইসলাম জানান, ১০নং গুনাইঘর দক্ষিন ইউপি ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোগক্তা ও এখানকার ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট গোলাম মহিউদ্দিন স্বপন এর বিরোদ্ধে কিছু অভিযোগ আমাদের কাছে ছিল। দ্বিতীয় ধাপের ভাতা বিতরণ জন্য আমরা শশরীলে এসে ভাতা ভোগীদের সাথে কথা বলে এবং তাদের অভিযোগ যাচাই বাছাই করে ভাতা বিতরণ করছি।

ভাতা অনিয়ম ও আত্মসাৎ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভাতা আত্মসাৎ বিষয়ে আমরা প্রতিটি ভাতাভোগীর সাথে ব্যাক্তিগত ভাবে কথা বলছি এবং যাচাই বাছাই করছি। তবে কিছু সম্যসা আছে তা হলো- তরিগরি এমআইএস এ ভূল এন্টি এবং একাউন্ট টাইটেল মিস মেচিং হওয়া সহ নানা জটিলতার কারণে ভাতাভোগীদের ভাতা পেতে বিলম্ব হচ্ছে। আমরা প্রথম ধাপের ভাতা বিতরণ শেষ করেছি এবং চলতি মার্চ মাসে বরাদ্ধ আশায় আগামী রমজান মাসের কথা বিবেচনা করে দ্বিতীয় ধাপও বিতরণ করছি।

ইউপি’র বিভিন্ন ওয়ার্ডের ভাতাভোগী হাসিনা বেগম, কুলছুম আক্তার, জান্নাতুল ফেরদৌসি সহ অন্যান্যরা জানান, ভাতার কার্ড হওয়ার পর ব্যাংকের একাউন্ট জটিলতায় আমাদের অনেকবার ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে। যার কারণে ভেবে নিয়েছিলাম আমাদের ভাতার টাকা উদ্যোক্ত স্বপন আত্মসাৎ করে নিয়েছেন। তবে কিছুদিন আগে প্রথম ধাপের টাকা পেয়েছি। দ্বিতীয় ধাপের ভাতা নেওয়ার জন্য ওয়ার্ড মেম্বার আমাদের খবর পাঠায় ইউপি ডিজিটাল সেন্টারে গিয়ে ভাতা সংগ্রহ করার জন্য। এই জন্য ভাতা নিতে এখানে এসেছি।

ভাতা বিতরণে অনিয়ম বিষয়ে ইউপি ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা গোলাম মহিউদ্দিন স্বপন জানান, ভাতা বিতরনে আমাদের কোন অনিয়ম নেই। সকল ভাতা প্রাপ্ত মায়েদের একাউন্ট যাচাই সহ সঠিক ভাবে তদন্তসাপেক্ষে তাদের মাঝে ভাতা তুলে দিচ্ছেন ব্যাংক এশিয়া কুমিল্লা জেলা ম্যানেজার।