ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১

দেবিদ্বারে নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া ছাত্রীর কোল জুড়ে নবজাতকের জন্ম;ফুটফুটে এই শিশুর দায়িত্ব নেবে কে?

প্রকাশ: ২০২১-০২-১৪ ০৬:০৩:০৩ || আপডেট: ২০২১-০২-১৪ ০৬:০৩:০৩

আবুল বাশার,দেবিদ্বার

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার সুবিল গ্রামের বখাটে সুমন মিয়া(২৪) কতৃক বিয়ের আশ্বাসে নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া ছাত্রীর সাথে একাধিক বার শারীরিক সম্পর্কের জেরে গত ৬ দিন আগে এক নবজাতকের জন্ম হয়েছে।
সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, গত তিন বছর আগে একই গ্রামের মনু ফকির বাড়ীর হুমায়ন এর ছেলে
সুমন মিয়ার সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান নবম শ্রেণী’তে পড়ুয়া ছাত্রী বিথী আক্তার(ছদ্ননাম) নামে ১৭ বয়সী এক কিশোরী।

বিথী আক্তার(ছদ্ননাম) জানায়, গত তিন বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল তাদের। সে তার বসত বাড়ীর সাথে অবস্থিত জালাল মেস্তুরির (মামার) বাড়ীতে রাতে ঘুমাতে গেলে তারই সুযোগ নেয় সুমন।
সুমন কে বার বার না করা সত্বেও জোর পূর্বক ভাবে সুমন তার সাথে একাধিক বার শারীরিক সম্পর্কে জড়িত হয়। সন্তানের মা হতে চলেছি বলে যখন সুমনকে বিষয়টি আমি জানাই, তখন সে এই বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য আমাকে অনুরোধ করে। আমি বিষয়টি কাউকে জানায় নি। যখন আমি তাকে জোর দিয়ে বলি তখন সে আমাকে বলে তোমাকে নিয়ে আমি ক্যান্টমেন্ট বাসা করে থাকব। আমার কসম তুমি কাউকে কিছু বলনা। গত কয়েক দিন পর আমার বন্ধুর বিয়ে, বিয়ের পর আমি তোমাকে বিয়ে করবে। কিন্তু ঐ দিন সুমনের কোনো বন্ধুর বিয়ে ছিল না,ঐ দিন ছিল সুমনের বিয়ে।
সুমন আমার সাথে প্রতারণা করেছে, যখন বিষয়টি আমি আমার পরিবারকে জানাই ঠিক তখনিই আমার উপর কালো আধাঁর নেমে আসে। সামাজিক মানসম্মানের ভয়ে আমার বাবা মা আমাকে বিষয়টি গোপন রেখে সুমনের পরিবারের সাথে সমঝোতা করার চেষ্টা করে। গত ৬ দিন আমি হাসপাতালে ছিলাম। আমার কোলে সুমনের বাচ্চা, আমি আমার সন্তানের পরিচয় চাই। আমি তার সন্তানের মা হয়েছি।
এদিকে ভিক্টিমের বাবা-মা জানায়, আমার যখন জানতে পেরেছি তখন অনেক দেরী হয়ে গিয়েছে। এখন আমরা তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করতেছি।
অন্যদিকে,অভিযুক্ত সুমনের মা জানান, এবিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। সুমন এখন কোথায় থাকে তাও কেউ জানেনা।
এ ঘটনায় কুমিল্লা বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-২ মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানা গেছে।।