ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১

লালমাইয়ে অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশ: ২০২০-১২-০৯ ১৩:৩৮:১৯ || আপডেট: ২০২০-১২-১০ ০৪:২০:৩২

প্রদীপ মজুমদার ও রিয়াজ মজুমদারঃ

রাতের আঁধারে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার জেলার লালমাই উপজেলার ভুলুইন দক্ষিণ ইউনিয়নের পরতি গ্রামে। গত ৩ ডিসেম্বর রাত প্রায় ১১ টায় স্থানিয় একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী (১৪) প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে বের হলে রাতের আঁধারেই মুখ চেপে ধরে গলায় চুরি ঠেকিয়ে ধর্ষণ করে এবং ভিডিও ধারণ করা হয়।

পার্শ্ববর্তী বাড়ির ধর্ষক স্বপন মিয়া (৩০) এ ঘটনা কাউকে জানালে মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও ফেইসবুকে ভাইরাল করবে বলে হুমকি দেয়। ভুক্তভোগী ১৪ বছর বয়সী ছাত্রী জানান, ”উনি সম্পর্কে আমার মামা হন। আমি তার পায়ে ধরে বলি আপনি আমার আব্বা লাগেন, আমাকে দয়া করে ছাইড়া দেন। সে আমার মুখ চেপে ধরে গলা কেটে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। তবুও ঘটনাটি আমি আমার মামানিকে জানাই। ভুক্তভোগীর পিতা জানান, আমি আমার স্ত্রী সহ চট্টগ্রামে চাকরি করি, মেয়ের পড়াশোনার জন্য তার নানার বাড়িতে রেখে যাই। ৪ তারিখ সকালে ঘটনা শুনে দ্রত চট্টগ্রাম থেকে চলে আসি এবং এলাকার মেম্বার ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে লালমাই থানায় গিয়ে অভিযোগ করি।

আমি আমার মেয়ের ধর্ষণকারিদের বিচার চাই। গ্রাম সর্দার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাসেম জানান, ঘটনাটি শুনে আমি চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে জানাই। অভিযুক্ত স্বপন মিয়া এলাকার চিহ্নিত অপরাধী, সে সবসময় বিদেশি অস্ত্র নিয়ে চলাফেরা করে। তিনি আরো বলেন, ঘটনাটি ধাপাচাপা দিতে প্রভাবশালী মহল চাপ সৃষ্টি করছে, এর আগেও নানান অপরাধে গ্রাম্য সালিশে তার বিচার হয়েছে। এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই। স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান একরামুল হক জানান, স্বপন এলাকার চিহ্নিত অপরাধী তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সুষ্ঠ তদন্তে প্রশাসনকে সহযোগিতা করবো।

লালমাই থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, এ ঘটনায় নারীও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা হয়েছে। আসামী গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে। মামলা নং-০২ ,তারিখ ০৪-১২-২০২০ইং। উক্ত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভূশ্চি বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি ও পুলিশ পরিদর্শক (নিঃ) মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, আসামী গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।