ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১

তৃতীয় দিনের মতো কুবি কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচী অব্যাহত

প্রকাশ: ২০২০-১১-২৪ ১২:২৭:৫৫ || আপডেট: ২০২০-১১-২৪ ১২:২৭:৫৫

কুবি প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) আট দফা দাবিতে
প্রশাসনের দেয়া প্রতিশ্রুতি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য তৃতীয় দিনের মতো অবস্থান কর্মসূূূচি পালন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী সমিতি।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে নয়টা থেকে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেন কর্মচারীরা।

তৃতীয় দিনের অবস্থান কর্মসূচিতে কর্মচারী নেতারা বলেন, আমাদের দাবিগুলো আমাদের প্রাপ্য অধিকার। আমাদের অধিকার আমাদের দিতে হবে। এখানে কেন বৈষম্য করা যাবে না।

পরে দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন অবস্থানস্থলে এসে কর্মচারীদের উদ্দ্যেশে বলেন, ‘কর্মচারীদের দাবিগুলো নীতিমালার সাথে সম্পৃক্ত। নীতিমালা যথাযথভাবে হলে সবগুলো দাবিই পূরণ হবে। এবিষয়ে উপাচার্য মহোদয়ের সাথে আলোচনা হয়েছে। বুধবার সিন্ডিকেট আছে সেখানে এ সংক্রান্ত একটি কমিটি করে দেওয়া হবে। এরপর পরবর্তী সিন্ডিকেটে কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে দাবিগুলোর বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’এসময় বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র দেব উপস্থিত ছিলেন।

কর্মচারীদের আট দফা দাবি গুলো হলো—জেষ্ঠ্যতার ভিত্তিতে শূন্যপদে নিয়োগে মৌখিক পরীক্ষা পর্যন্ত অংশগ্রহণকৃত আপগ্রেডেড অভ্যন্তরীণ সকল প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়া, কর্মচারীদের জন্য যুগোপযোগী নীতিমালা প্রণয়ন ও সংশোধন, ল্যাব টেকনেশিয়ানদের প্রস্তাবিত সময়সীমা নীতিমালায় সংযুক্ত করা, যাদের বিভাগীয় মামলা ও সাময়িক বহিষ্কারাদেশ আছে তাদের সাধারণ ক্ষমা করা।

এছাড়া ওভারটাইম কর্ম ঘন্টা বৃদ্ধি ও স্কেল অনুযায়ী আর্থিক সুবিধা দিয়ে নীতিমালা প্রণয়ন, কর্মচারীদের উচ্চশিক্ষার প্রশাসনিক অনুমতি এবং সার্টিফিকেট নথিভুক্ত করণ করা, যথাসময়ে সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত এবং আপগ্রেডেড কর্মচারীদের স্থায়ীকরণ এবং ইলেকট্রেশিয়ান ও প্লাম্বারদের পদ তৃতীয় শ্রেণীতে ভুক্তকরণ।

প্রসঙ্গত, আট দফা দাবি আদায়ে গত দুই দিন ধরে কর্মচারীরা নানা কর্মসূচি পালন করে আসছে।