ঢাকা, আজ শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

ঢাকায় হেফাজতের ডাকে লাখো জনতার অংশগ্রহণে ফ্রান্স দূতাবাস ঘেরাও

প্রকাশ: ২০২০-১১-০২ ১২:১০:৫৭ || আপডেট: ২০২০-১১-০৪ ০০:১৬:৪৬

ডেস্ক রিপোর্টঃ

হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর অবমাননার প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ডাকে আজ সোমবার (২ নভেম্বর) ফ্রান্স দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি চলছে। লাখো জনতা এতে অংশ নিয়েছেন।

দুতাবাস ঘেরাও এর আগে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররমে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

এসময় হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছন, ফ্রান্সের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক সম্পূর্ণরূপে ছিন্ন করতে হবে। ইসলাম অবমাননাকারিদের মৃত্যুদণ্ডের জন্য জাতীয় সংসদে আইন পাশ করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, ফ্রান্স সরকার নবীর সঙ্গে বেয়াদবি করে বিশ্বের দুইশ কোটি মুসলমানের অন্তরে আঘাত করেছে। বিশ্বের মুসলমানদের কাছে তাদের ক্ষমা চাইতে হবে।

সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ফ্রান্সে সরকারের পণ্য বরজন করুন। সব ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করুন, দূতাবাস বন্ধ করুন।

আল্লামা কাসেমী বলেন, যদি সরকার আমাদের দাবি না মানে তাইলে আমরা আরো কঠিন আন্দোলনে যাবো ইনশাআল্লাহ।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকের মহাসচিব আল্লামা মাহফুজুল হক, জমিয়ত নেতা মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব, মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, আহমদ আবদুল কাদের, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক, মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, জমিয়ত নেতা মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, ইসলামী ঐক্যজোট নেতা মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন রাজি, বিশিষ্ট ওয়ায়েজ মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, মাওলানা হাসান জামিলসহ আর অনেকে।

এদিকে বক্তব্য শেষে ঘেরাওয়ের উদ্দেশে মিছিল নিয়ে ফ্রান্স দূতাবাস অভিমুখে রওয়ানা হয়েছেন হেফাজতের নেতৃবৃন্দ, সদস্য ও সাধারণ মানুষ।