ঢাকা, আজ বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০

কোটবাড়ির ব্যবসায়ী আকতার হত্যা মামলার প্রধান আসামী এক মাসেও গ্রেফতার না হওয়ায় পরিবারের ক্ষোভ

প্রকাশ: ২০২০-০৮-১০ ১১:০৫:২৯ || আপডেট: ২০২০-০৮-১০ ১১:০৫:২৯

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কুমিল্লা মহানগরীর ২৩নং ওয়ার্ডের কোটবাড়ি চাঙ্গিনী এলাকায় ব্যবসায়ী মোঃ আক্তার হোসেনকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামী কাউন্সিলর মোঃ আলমগীর হোসেন সহ পলাতক অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে সোমবার দুপুরে কোটবাড়ি চাঙ্গিনী মোড়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে নিহতের পরিবারের লোকজন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে নিহত আক্তার হোসেন এর ছোট ভাই ২৩নং ওয়ার্ড যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শাহজালাল আলাল বলেন,ব্যবসায়ী আকতার হত্যা মামলার প্রধান আসামী কাউন্সিলর আলমগীর সহ পলাতক আসামীরা হত্যাকান্ডের এক মাসেও গ্রেফতার না হওয়ায় শোকাহত পরিবারকে বিষয়টি ভাবিয়ে তুলেছে। এই হত্যাকান্ডের অন্যতম আসামী
কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের উপ-সহকারী প্রকৌশলী তোফাজ্জল হোসেন হত্যাকান্ডের পর থেকে পলাতক।

সে এখন অফিসে উপস্থিত থাকেনা, তাই সিটি করর্পোরেশনের মেয়রের কাছে দাবি জানায় তাকে যেন বহিস্কার করা হয়।
কাউন্সিলর আলমগীর দলীয় পদ পাবার পর বেপরোয়া হয়ে উঠে। নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে জোড়পূর্বক একের পর এক কর্মকান্ড চালাতো। একজন মানুষকে প্রকাশ্যে দিবালোকে হত্যা করা সহ হত্যা মামলার প্রধান আসামী কখনো জনপ্রতিনিধি থাকতে পারে না।

কর্তৃপক্ষের নিকট আলমগীরের কাউন্সিলর পদ স্থগিত করার দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি অবিলম্বে তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান তিনি।
এ সময় নিহত আকতার হোসেন’র স্ত্রী রেখা বেগম,২৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মোঃ মনির হোসেন, চাঙ্গিনী বাইতুন নূর জামে মসজিদের ইমাম শহিদুল ইসলাম, সমাজসেবক আতিকুল ইসলাম মাস্টার,হারুনুর রশিদ,আবুল কালাম,মফিজুল ইসলাম সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্যঃ গত ১০জুলাই কোটবাড়ি চাঙ্গিনী জুম্মার নামাজ আদায় করে বের হওয়ার পর ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন কে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।