ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

হ্যান্ড স্যানিটাইজার থেকে আগুনে দগ্ধ কুমিল্লার কৃতিসন্তান ডা. রাজীব মারা গেছেন

প্রকাশ: ২০২০-০৭-২৮ ০৫:২৬:১৬ || আপডেট: ২০২০-০৭-২৮ ০৫:২৭:৫৫

আবুল বাশারঃ

রাজধানীর হাতিরপুলে বাসায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার থেকে অগ্নিকাণ্ডে চিকিৎসক দম্পতি দগ্ধের ঘটনায় কুমিল্লার কৃতিসন্তান ডা. রাজিব ভট্টাচার্য (৩৫) শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে মারা গেছেন।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় ইনস্টিটিউটের আইসিইউতে তার মৃত্যু হয়। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোসার্জারি বিভাগের চিকিৎসক ছিলেন।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রাজিবের শ্বাসনালীসহ শরীরের ৮৭ শতাংশ দগ্ধ ছিল। তাকে আইসিইউতে লাইফ সার্পোর্টে রাখা হয়েছিল। সেখানে আজ সকাল সাড়ে ৮টায় তার মৃত্যু হয়। তার স্ত্রী ২০ শতাংশ দগ্ধ নিয়ে এখনও বার্নে ভর্তি রয়েছে। বাসার ভেতর হ্যান্ড স্যানিটাইজার আগুনের সংস্পর্শে এই অগ্নিদগ্ধের ঘটনা ঘটেছে বলে আমরা জানতে পেরেছি।

রাজিবের বন্ধু ডা. সুদীপ দে জানান, মঙ্গলবার ২১ জুলাই দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বাসায় রাজিব একটি বড় বোতল থেকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ছোট বোতলে ঢালছিলেন। তখন বোতল থেকে স্যানিটাইজার পড়ে গেলে মুখে সিগারেট বা মশার কয়েল আগুনের সংস্পর্শে তার শরীরে আগুন ধরে যায়। এটি দেখতে পেরে তার স্ত্রী সম্ভবত বাঁচাতে গিয়ে নিজেও দগ্ধ হন। পরে চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিটিউটে ভর্তি করেন।

স্বজনরা জানান, রাজিবের বাড়ি কুমিল্লা দেবীদ্বার উপজেলার ইস্টগ্রামে। একমাত্র মেয়ে রাজশ্রী ভট্টাচার্যকে (৫) নিয়ে হাতিরপুল ইস্টার্ন প্লাজার পেছনের একটি বাড়ির তৃতীয় তলায় ভাড়া থাকতেন। তার বাবার নাম লক্ষণ ভট্টাচার্য। ডা. রাজিব ভট্টাচার্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোসার্জারি বিভাগের চিকিৎসক আর তার স্ত্রী ডা. অনূসূয়া ভট্টাচার্য (৩২) শ্যামলি সেন্ট্রাল মেডিকেল চক্ষু বিভাগের রেজিস্টার।