ঢাকা, আজ শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যু; কুমিল্লার বিশিষ্টজনদের শোক প্রকাশ

প্রকাশ: ২০২০-০৭-১৩ ১৪:১৫:৫২ || আপডেট: ২০২০-০৭-১৩ ১৪:১৫:৫২

স্টাফ রিপোর্টারঃ

দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুল আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। সোমবার (১৩ জুলাই) রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন এই বরেণ্য শিল্পপতি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। গত ১৪ জুন নুরুল ইসলাম বাবুলের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। ওইদিনই তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। করোনায় তার কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিশিষ্ট এই শিল্পোদোক্তার চিকিৎসায় এভারকেয়ারের চিকিৎসক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মাহবুদের নেতৃত্ব ১০ সদস্যবিশিষ্ট মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

এর বাইরে চীনের চারজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এবং সিঙ্গাপুরের মাউন্ড এলিজাবেথ হাসপাতালের দুজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে পরামর্শ দিয়েছেন। তার স্ত্রী সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বর্তমান জাতীয় সংসদের সদস্য সালমা ইসলাম। ছেলে শামীম ইসলাম যমুনা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, তার তিন মেয়ে- রোজালিন ইসলাম, মনিকা ইসলাম এবং সনিয়া ইসলাম যমুনা গ্রুপের পরিচালক।

যমুনা গ্রুপ বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ শিল্পগ্রুপ। ১৯৭৪ সালে নুরুল ইসলাম বাবুল যমুনা গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করেন। মেধা, দক্ষতা, পরিশ্রম ও সাহসিকতার মাধ্যমে একে একে শিল্প ও সেবাখাতে গড়ে তোলেন ৪১টি প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে ৫০ হাজারের বেশি মানুষ কাজ করছে এই যমুনা গ্রুপে। এশিয়ার সবচেয়ে বড় শপিংমল যমুনা ফিউচার পার্ক, যমুনা নির্মাণাধীন মেরিয়টস হোটেলসহ শিল্প ও সেবাখাতে শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে গ্রুপটি।

ইলেকট্রনিক্স, বস্ত্র, ওভেন গার্মেন্টস, রাসায়নিক, চামড়া, মোটরসাইকেল, বেভারেজ টয়লেট্রিজ, নির্মাণ এবং আবাসন খাতে ব্যবসায় শীর্ষস্থানে রয়েছে এই গ্রুপ। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং মানুষের কর্মসংস্থান তৈরিতে নুরুল ইসলাম বাবুল একজন আধুনিক চিন্তার সাহসী উদ্যোক্তা। দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা তিনি। সর্বশেষ করোনার চিকিৎসায় কুড়িলে ৩০০ ফিটের কাছে আন্তর্জাতিক মানের হাসপাতাল করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

ইতোমধ্যে এর প্রাথমিক আলোচনাও শেষ করেছিলেন। করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ১০ কোটি টাকার অনুদানও দিয়েছিলেন তিনি।

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে কুমিল্লার বিশিষ্টজনদের শোকঃ
বাংলাদেশের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, শিল্পপতি ও যমুনা গ্রুপ, যমুনা টেলিভিশন এবং দৈনিক যুগান্তরের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কুমিল্লার বিশিষ্টজনরা। সেই সাথে তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

শোক প্রকাশ করেছেন- স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি, কুমিল্লা ৬ আসনের এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু, সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিব এমপি, সাবেক আইনমন্ত্রী এড. আবদুল মতিন খসরু এমপি, ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এমপি, মেজর সুবিদ আলী ভূঁইয়া এমপি, সেলিমা আহমাদ এমপি, রাজী মোহাম্মদ ফখরুল এমপি, অধ্যাপক আলী আশরাফ এমপি, নাসিমুল আলম চৌধুরী এমপি, আঞ্জুম সুলতানা সীমা এমপি, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় এর উপাচার্য প্রফেসর ড. এমরান কবির চৌধুরী, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, কুমিল্লা সদর উপজেলার চেয়ারম্যান এড. আমিনুল ইসলাম টুটুল, লাকসাম উপজেলার চেয়ারম্যান এড. ইউনুছ ভূঁইয়া, দেবিদ্বার উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জয়নুল আবেদীন, সদর দক্ষিণ উপজেলার মেয়র গোলাম সারোয়ার, নাঙ্গলকোট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সামছুউদ্দিন কালু, দাউদকান্দি উপজেলার চেয়ারম্যান মেজর মোহাম্মদ আলী সুমন, মনোহরগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যন জাকির হোসেন, লাকসাম পৌর মেয়র আবুল খায়ের, নাঙ্গলকোট পৌর মেয়র আবদুল মালেক, দাউদকান্দি পৌর মেয়র নাঈম ইউসুফ সেইন, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাবলু, কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ। এছাড়াও শোক জানিয়েছে কুমিল্লা প্রেসক্লাব, কুমিল্লা টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, কুমিল্লা রিপোর্টার্স ইউনিটি, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি কুমিল্লা জেলা শাখা।