ঢাকা, আজ শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০

কুমিল্লায় ব্যবসায়ী হত্যার ঘটনায় ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ৩

প্রকাশ: ২০২০-০৭-১১ ১৪:০২:১৭ || আপডেট: ২০২০-০৭-১১ ১৪:০৪:৫০

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার চাঙ্গিনী গ্রামের ব্যবসায়ী আক্তার হোসেনের নিহত হওয়ার ঘটনায় ১০ জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শনিবার (১১ জুলাই) তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এদিকে ময়না তদন্ত শেষে ব্যবসায়ীর লাশ দাফন করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- আমির হোসেন, বিল্লাল হোসেন ও জাহাঙ্গীর হোসেন।

নিহত আক্তার হোসেনের স্ত্রী রেখা বেগম এ মামলা দায়ের করেন। এতে মহানগর যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক কাউন্সিলর আলমগীর হোসেনকে প্রধান আসামি করা হয়। এছাড়াও তার ভাই আমির হোসেন, বিল্লাল হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, তোফাজ্জল হোসেন, গুলজার হোসেন, গুলজার হোসেনের ছেলে নাজমুল ইসলাম আলিফ ও নাজমুল ইসলাম তানভীরের নামে মামলা করা হয়।

মামলার বাকী দুই আসামি পাশের তুলাতলী গ্রামের ইউনুসের ছেলে কাউছার আাহমেদ ও চাঙ্গিনী গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে জোবায়ের হোসেন।

মামলার বাদী রেখা বেগম জানান, মামলার দশ আসামি সকলের ফাঁসি চাই। তারা নির্মমভাবে কুপিয়ে আমার স্বামীকে হত্যা করেছে। এর বিচার চাই।

মামলার এক নম্বর সাক্ষী নিহতের ভাই আলাল বলেন, কাউন্সিলর চাঁদাবাজ। চাঁদা না দিলে কাউন্সিলর হামলা ও মামলার হুমকি দেয়। তার বাহিনীর ভয়ে এলাকায় কেউ কথা বলতে পারে না। তার বিরুদ্ধে কথা বলতে গেলে আমার ভাইকে হত্যা করা হয়।

সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে ১০ জনের নামে মামলা করেছেন নিহত আক্তারের স্ত্রী রেখা বেগম। তাদের মধ্যে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কাউন্সিলর আলমগীরসহ বাকী আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য, নগরীর চাঙ্গিনী এলাকায় জমি ও রাজনৈতিক বিরোধে ব্যবসায়ী আক্তারকে হত্যা করা হয়। শুক্রবার জুমার নামাজের পরে কয়েক শ’ লোকের সামনে মসজিদ থেকে টেনে হিঁচড়ে বের করে আক্তারকে কুপিয়ে হত্যা করা হয় বলে কাউন্সিলর ও তার পরিবারের সদস্যরা দাবি করেন