ঢাকা, আজ বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এলাকাবাসীর সংঘর্ষে আহত ৫

প্রকাশ: ২০২০-০৬-০৩ ০৮:২৭:৪৮ || আপডেট: ২০২০-০৬-০৩ ০৮:২৭:৪৮

হেবজুল বাহার নবীনগর থেকে,

ব্রাক্ষণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের সাহেবনগর গ্রামে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছে।

আহত ব্যক্তিরা হলেন কালু মিয়া (৪২) পিতা মৃত শানু মিয়া, হাফিজ মিয়া (৫০) পিতা-মৃত ছোট মিয়া, ওবায়দুল্লাহ (৪২) পিতা-মৃত মাওলানা জলিল মিয়া এনামুল (৪২)পিতা আবুল ও কাউসার মিয়া (৫৫) পিতা সিদ্দিক মিয়া।

আহতদেরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়।

নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স তথ্য সুত্রে জানা যায়, সাহেবনগর ১টি জল মহল বিলকে কেন্দ্র করে এই রক্ত ক্ষয় সংঘর্ষের সূত্রপাত ঘটে।

বরদা বাড়ি গ্রুপ যে অংশটি সাহেবনগর পশ্চিমপাড়া হিসেবে পরিচিত অপর গ্রুপটি মহিউদ্দিন বাড়ির মধ্যপাড়া গ্রুপ হিসেবে পরিচিত।

দীর্ঘদিন যাবত এই দুই বাড়ির লোকজনের মধ্যে জমি-জমা নিয়ে মারামারি হানাহানি লেগেই থাকত। এলাকাবাসি সুত্রে জানা যায় গতকাল থেকে সংঘর্ষের উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

খবর পেয়ে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জের নির্দেশে, সলিমগঞ্জ ক্যাম্পের পুলিশের উপস্থিতির কারণে সংঘর্ষের ঘটনা সংগঠিত হতে পারেনি।

সারা রাত পুলিশ উপস্থিতি থাকলেও ফজরের আযানের পর পুলিশ চলে আসলে দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়।

এতে গুরুতর আহত হয়ে নবীনগর উপজেলা স্যাস্হ্য কমপ্রেক্স নিয়ে আসলে আশংকাজনক অস্হাদেখে কর্তব্যরত ডাঃ তাদেরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রেরণ করেন।

গুরুতর আহত ব্যক্তিদের বেশিরভাগই দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে গুরুতর আঘাত ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় দেখা যায়।

সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ সাথে যোগাযোগ করা হলে ,
তিনি বলেন সংঘর্ষ এড়ানোর জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হয়েছে। পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে সেটি নিয়ে তদন্ত চলছে।

এলাকাবাসী সূত্রে পুলিশের ফাঁকা গুলি ছোড়ার খবরও পাওয়া গেছে।
করোনাভাইরাস ভয়াবহ পরিস্থিতির সময় এমন ঘটনায় নবীনগর উপজেলায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।