ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় অতিরিক্ত লোডশেডিংয়ে নাকাল উপজেলা বাসী

প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৯ ১৭:৪৫:০৩ || আপডেট: ২০২০-০৫-২৯ ১৭:৪৯:২১

অমিত হাসান অপু,আখাউড়া প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় অতিরিক্ত লোডশেডিংয়ে নাকাল উপজেলা বাসী বিদ্যুতের যাওয়া আসা খেলায় অতিষ্ঠ উপজেলার জনগন।পল্লী বিদ্যুৎ এর বর্তমান ডিজিএম আবুল বাশার সমালোচনায় সরব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

রেলওয়ে জংশন,স্থলবন্দরসহ, ব্যবসা বাণিজ্যের কেন্দ্রবিন্দু ছোট্ট শহর আখাউড়া।স্থানীয় সংসদ সদস্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হক আখাউড়া উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করার পর।বেশ ভালই চলছিল এতোদিন।কিন্তু গত কয়েকমাস আগেআখাউড়া পল্লী বিদ্যুৎ এর ডিজিএম হিসেবে দায়িত্ব গ্রহন করেন আবুল বাশার।

আখাউড়াবাসীর অভিযোগ,তার খামখেয়ালিপনা,অব্যবস্থাপনা ফলে ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতির মাঝে অতিরিক্ত লোডশেডিং অতিষ্ঠ জনগন।ডি জি এমের বদলির দাবি করেন স্থানীয়রা তার বিরোদ্ধে অভিযোগ গাছের পাতা নড়লেই চলে যায় বিদ্যুৎ,দিনে কতোবার বিদ্যুৎ থাকেনা তা গুনে শেষ করা যাবে না।

পৌরসভার মধ্যে ও অসংখ্যবার কারনে অকারনে চলে লোডশেডিং।ইউনিয়ন গুলোর অবস্থা আরো শোচনীয়, একবার বিদ্যুৎ চলে গেলে কখন আসবে তার ঠিক নাই।আখাউড়াবাসীর অভিযোগ নতুন ডিজিএম আসার পর থেকেই লোডশেডিংর মাত্রা ব্যপক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।তাছাড়া সেবার মান এখন তলানিতে। অসংখ্যবার কল দিয়ে ও যোগাযোগ করা যায় না ডিজিএম’র সাথে।গ্রাহকের সাথে দূর্ব্যবহার করার ও অভিযোগ আছে অসংখ্য।

এমতাবস্থায় ডিজিএম কে সরিয়ে নতুন যোগ্য ও দক্ষ ডিজিএম নিয়োগ করার জোর দাবি জানিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সুদৃষ্টি কামনা করছে আখাউড়ার সর্বস্থরের জনগন।

এক গ্রাহক জানায়,দক্ষিণ ইউনিয়নের নুরপুর গ্রামে একটি ট্রান্সমিটার দিয়ে তেল আর ধোয়া বের হচ্ছে। আমি ওনাকে কল করার পর কোন সমাধান না দিয়ে উল্টা বলে একটা নম্বার পাইছেন সারাদিন এইটার মধ্যেই কল দেন।আর কোন নম্বর নাই নাকি,বিলের পিছনে নম্বর আছে কল করেন যান।তিনি উত্তেজিত কন্ঠ ব্যবহার করছে।যা একজন ডিজিএম থেকে আশা করা যায় না।

সাদ্দান হোসাইন নামে এক ফেইসবুক আইডি থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে লাইভে এসে ক্ষোভ নিয়ে বলেন ৩ দিন ধরে অন্ধকারে আছি। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়, আমাদের আর কয়দিন অন্ধকারে থাকতে হবে গ্রামে(বাউতলা,সেনারবাদী,উমেদপুর,ছয়ঘড়িয়া,খলাপাড়াসহ আশেপাশের এলাকায় বাস করা কি আমাদের অপরাধ?

অতিরিক্ত লোডশেডিং এর ব্যাপারে জানতে চাইলে আখাউড়া পল্লী বিদ্যুৎ এর দায়িত্বরত ডিজিএম আবুল বাশার লোকবলের ঘাটতি,বিদ্যুতিক লাইনে কাজ চলছে ইত্যাদি বলে দায় সারা হয়ে যান।