ঢাকা, আজ শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০

ইউটিউবে বিশ্বরেকর্ড করতে যাচ্ছে জনপ্রিয় তুর্কী ড্রামা সিরিজ ‘দিরিলিস আরতুগ্রুল’!

প্রকাশ: ২০২০-০৫-১৬ ০৮:২৮:১৭ || আপডেট: ২০২০-০৫-১৬ ০৮:২৮:১৭

অনলাইন ডেস্কঃ

ইসলামী খেলাফতের সর্বশেষ ধারক বাহক ছিলেন উসমানীয়রা। এই উসমানীয় সাম্রাজ্যের উত্থান নিয়েই নির্মিত হয়েছে ইসলামী ইতিহাস নির্ভর জনপ্রিয় ও সারা জাগানো তুর্কী ড্রামা সিরিজ ‘দিরিলিস আরতুগ্রুল’ তথা ‘আরতুগ্রুল গাজী’।

এই জনপ্রিয় মুসলিম ইতিহাস নির্ভর
তুর্কি ড্রামা সিরিজটি সাম্প্রতিক কালে পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলে প্রচারিত হওয়ার পর এই সিরিজটির উর্দু ডাবিং ইউটিউব চ্যানেল ‘টিআরটি আরতুগ্রুল বাই পিটিভি’র ইউটিউব চ্যানেলটি এক মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ নতুন সাবস্ক্রাইবারের বিশ্বরেকর্ড ভেঙ্গে দিতে চলেছে।

রাষ্ট্র পরিচালিত টিভি চ্যানেল ‘পাকিস্তান টেলিভিশন’ (পিটিভি)তে সিরিজটি সম্প্রচারের পর সিরিয়ালটির ইউটিউব চ্যানেল ‘টিআরটি আরতুগ্রুল বাই পিটিভি’র নতুন গ্রাহক(সাবস্ক্রাইবারের) সংখ্যা ১মিলিয়ন ছাড়িয়েছে।

‘টিআরটি আরতুগ্রুল বাই পিটিভি’ তাদের অফিশিয়াল টুইটার একাউন্টে টুইট বার্তায় লিখেছে, “এখনই সময় ২৬ শে মে ২০২০ এর আগে নতুন গ্রাহক সংখ্যা ৬.৬ মিলিয়নে পৌঁছে দিয়ে ইউটিউবে এক মাসে সর্বোচ্চ নতুন সাবস্ক্রাইবারের বিশ্বরেকর্ড গড়ার। এই টুইট বার্তায় তারা ‘আরতুগ্রুল ইউটিউব রেকর্ড’ সম্বলিত হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে।

এসময় তারা তাদের টুইট বার্তায় উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা (১ম)উসমানের পিতা আরতুগ্রুল গাজীর ভক্তদের কাছে এই ইউটিউব চ্যানেলটি http://youtube.com/trtertugrulptv

সাবস্ক্রাইব করার আহ্বান জানিয়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গত বছর তুরস্ক সফর করে আসার পর পিটিভি, ইসলামি ইতিহাস নির্ভর এই বিখ্যাত তুর্কী সিরিজটি উর্দু ভাষায় ডাবিং করা শুরু করে। উল্লেখ্য প্রধানমন্ত্রী ‘ইমরান খান’ তুরস্ক সফরকালে এই অসাধারণ সিরিজটির বিষয়বস্তু সম্পর্কে অবগত হওয়ার পর ইসলামি মূল্যবোধ ও ইতিহাস জানার অন্যতম মাধ্যম বিবেচনায় পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলে সম্প্রচারের ব্যাপারে আগ্রহী হয়ে উঠেন।

‘মাসের প্রথম দিনে প্রথম পর্ব’ প্রতিপাদ্যের প্রতি লক্ষ্য রেখে ২৫শে এপ্রিল রমজান মাসের প্রথম দিনে ১৩ শতাব্দীর মুসলমানদের ইতিহাস তুলে ধরা এই বিখ্যাত ও জনপ্রিয় তুর্কি টিভি সিরিজের প্রথম পর্ব সম্প্রচার করেছিল পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেল পিটিভি।

৪৫ মিনিট দৈর্ঘ্যের প্রথম পর্বটি প্রচারিত হওয়ার অল্প সময়ের মধ্যেই, দর্শকরা সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘হ্যাশট্যাগ আরতুগ্রুল উর্দু পিটিভি’ ট্রেন্ডিং চালু করে প্রথম পর্বের কিছু দৃশ্য শেয়ার করে সিরিজটিকে স্বাগত জানাতে থাকে।

এই সিরিজটিকে প্রায়শই তুর্কি ‘গেম অফ থ্রোনস’ হিসাবে বর্ণনা করা হয়ে থাকে তবে তা ‘গেম অফ থ্রোনসের’ মতো অরুচিকর নগ্নতা বিবর্জিত। সিরিজটির চিত্রনাট্য ত্রয়োদশ শতাব্দীর আনাতোলিয়া জুড়ে বোনা হয় এবং এতে অটোমান সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠার আগের গল্প অভিনয়ের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে তাছাড়াও এতে বাতিলের বিরুদ্ধে উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা (১ম) উসমানের পিতা আরতুগ্রুল গাজীর লড়াইয়ের চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।

ইতিমধ্যে অন্যান্য তুর্কি টিভি সিরিজও পাকিস্তানে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

তুরস্ক, পাকিস্তান এবং মালয়েশিয়া গত সেপ্টেম্বরে মূলত পশ্চিমা বিশ্বে ইসলামভীতির ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক ধারার বিরুদ্ধে লড়াই করতে সম্মত হয়েছিলেন।জাতিগুলির তিন ত্রয়ী(এরদোগান, ইমরান খান ও মাহাথির মোহাম্মদ) এক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে উদ্ভুত ইসলামভীতির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় এবং মুসলিম বীরদের উপর চলচ্চিত্র প্রযোজনার জন্য একটি টেলিভিশন চ্যানেল উৎসর্গ করা হবে।

সূত্রঃ ইনসাফ ২৪.কম