ঢাকা, আজ রোববার, ২০ জুন ২০২১

কুমিল্লার বরুড়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক তরুণীর আত্মহত্যা

প্রকাশ: ২০২১-০৫-২৭ ১৫:৪১:২০ || আপডেট: ২০২১-০৫-২৭ ১৫:৪২:২০

বরুড়া প্রতিনিধিঃ
কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ৩ নং খোশবাস (উ:) ইউনিয়নের দেওয়ান নগর (ফতেহারপাড়) গ্রামের রবিউল আলমের মেয়ে কেমতলী টেকনিক্যাল উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পুড়য়া ছাত্রী সাথী আক্তার (১৫) ২৭ মে বৃহস্পতিবার ভোর আনুমানিক ৪.৩০ ঘটিকার সময় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। ভোর আনুমানিক ৩.৩০ ঘটিকার সময় সাথী আক্তার তাহার মাকে সেহেরী খাওয়ার জন্য ঘুম থেকে ডেকে তোলে।

এরপর আনুমানিক ৪.৩০ মিনিটের সময় ওযু করে নামাজ পড়ার জন্য তাহার রুমের দিকে গেলে রুমের দরজা বন্ধ পাওয়া যায়। দরজা ভেঙ্গে রুমে প্রবেশ করলে সাথী আক্তারকে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। এই বিষয়ে তাহার মা সালমা বেগম (৩৯) বরুড়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন। বরুড়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান মামলার তদন্তভার গ্রহণ করেন।

ময়নাতদন্তের জন্য সাথী আক্তার এর লাশ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এখন পর্যন্ত তাহার আত্মহত্যা করার কোন কারণ বা রহস্য উদঘাটিত হয়নি। ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে বলে বরুড়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক জানান।