ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১

সহপাঠী আবু তাহেরের পাশে দাঁড়াতে ৯৯ ব্যাচের ইফতার ও দোয়া মাহফিল এবং সাহায্যের আবেদন

প্রকাশ: ২০২১-০৫-০৪ ১৫:৩০:০৬ || আপডেট: ২০২১-০৫-০৪ ১৫:৩০:০৬

স্টাফ রিপোর্টারঃ

পৃথিবীর প্রতিটি সম্পর্কের পেছনে কোন না কোন নিরব স্বার্থ লুকিয়ে থাকে, শুধুমাত্র বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছাড়া। বন্ধুত্বের মধুর সম্পর্ক আসলেই সকল স্বার্থের উর্ধ্বে। ছোটবেলায় একটি কথা বারবার শুনতাম “বন্ধু ছাড়া লাইফ ইমপসিবল” কিডনি রোগে আক্রান্ত প্রিয় বন্ধু আবু তাহেরের অসহায়ত্ব গুছাতে ১৯৯৯ ব্যাচের আজকের বিশেষ ইফতার মাহফিল সেই বাণী আবারও সত্য প্রমাণ করলেন।

প্রসঙ্গত- দুরারোগ্য কিডনী জনিত মরণব্যাধিতে আক্রান্ত আবু তাহের দীর্ঘ ২/৩ বছর ধরে টানা মোটা অংকের চিকিৎসা খরচের ব্যায়ভারের ঘানি টানতে টানতে প্রবাসী জীবনের কষ্টার্জিত সকল রোজগার শেষ করার পর অবশেষে শেষ সম্বল ফসলি জমিটা বিক্রি করে সর্বস্ব হারিয়ে চিকিৎসা খরচের কোন কূলকিনারা না পেয়ে বাঁচার আকুতি নিয়ে সমাজের সর্বসাধারণের দোয়ারে সাহায্যের হাত পেতেছেন কুমিল্লা জেলার, বুড়িচং উপজেলার ৭নং মোকাম ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ডুবাইরচর উত্তর পাড়ার আবু তাহের।

আবু তাহেরের মানবেতর জীবন যাপনের এমন খবর বিভিন্ন পত্র-পত্রিকাসহ সামাজিক গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে অসহায় আবু তাহেরের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি নিয়ে এগিয়ে আসেন তার বাল্যবন্ধু ১৯৯৯ ব্যাচের সতীর্থরা, আর্থিক সহায়তা দিয়ে তার পাশে দাঁড়াতে বাল্যবন্ধু বর্তমান পল্লী চিকিৎসক বিল্লাল হোসেন এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক এমডি রাশেদের আহ্বানে উক্ত ব্যাচের বাকি সকল বন্ধুদেরকে নিয়ে সৈয়দপুরের একটি রেষ্টুরেন্টে আজ বিশেষ ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

আয়োজনের পুরোটি জুড়েই অসহায় আবু তাহেরকে কিভাবে সর্বোচ্চ সহায়তা দিয়ে সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনা যায় সে বিষয়েই দীর্ঘ আলোকপাত হয়। এসময় বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজ সেবক জনাব মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন- আমরা বেঁচে থাকতে আমাদের চোখের সামনে আমাদেরই কাছের একজন বাল্য বন্ধু এইভাবে ধুঁকে ধুঁকে নিঃশেষ হয়ে যাবে আর আমরা চেয়ে চেয়ে দেখবো তা কখনোই হতে পারে না, আমরা আমাদের সাধ্যের সবটুকুন বিলিয়ে দিয়ে হলেও আবু তাহেরের পাশে দাঁড়াবো ইনশাআল্লাহ।

এসময় জনাব মঞ্জুরুল ইসলাম আরও বলেন- আমাদের পাশাপাশি সমাজের সর্বস্তরের বিত্তবান এবং মানবিক ভাই-বোনেরাও যেনো আমাদের অসহায় বন্ধুটির পাশে দাঁড়ায় সোজন্য তিনি সকলের নিকট অনুরোধ করেছেন। অতঃপর তার কথার সাথে সকলে একমত পোষণ করে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হলে পরিশেষে ইফতারির মধ্য দিয়ে আয়োজনটির সমাপ্তি ঘটে।

বর্তমানে আবু তাহের কুমিল্লার সিটি স্ক্যান, এমআরআই, স্পেশালাইজড ডায়াগনস্টিক এন্ড ডায়ালাইসিস সেন্টারে চিকিৎসা নিচ্ছেন। কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তাকে বাঁচাতে হলে শীঘ্রই তার একটি বড় ধরণের অপারেশন প্রয়োজন, যার ব্যায়ভার আনুমানিক ২০/২৫ লক্ষ টাকার মতো লাগতে পারে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

আবু তাহের সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এবং টাকা পাঠাতে নিম্নোলিখিত নাম্বারসমূহে যোগাযোগ করার জন্য বিনীত অনুরোধ করা গেলো-

সাহায্য পাঠানোর একাউন্টসমূহ-
শাহজালাল: ০১৮৯৩-০২১৩৭৫ (বিকাশ পার্সোনাল)
শরীফুল ইসলাম: ০১৯৪৯-৯১৪৭১১ (বিকাশ পার্সোনাল)

তাছাড়া রোগীর সাথে সরাসরি কথা বলতে চাইলে এই নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন- 01639-273708