ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১

চৌদ্দগ্রামে নারী শিক্ষিকাকে নির্যাতনের অভিযোগে মাদরাসা সুপার সাময়িক বহিস্কার

প্রকাশ: ২০২১-০৩-১৭ ১২:০৩:৩১ || আপডেট: ২০২১-০৩-১৭ ১২:০৬:৫৮

 

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের বাবুর্চী দারুচ্ছুন্নাত দাখিল মাদরাসার এক নারী শিক্ষিকাকে নির্যাতনের অভিযোগে ওই মাদরাসার সুপার এ.বি.এম কবির আহম্মেদকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। এর আগে নারী শিক্ষিকা মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতির বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন।

বহিস্কার আদেশ সূত্রে জানা যায়, চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের বাবুর্চী দারুচ্ছুন্নাত দাখিল মাদরাসা সুপার এবিএম কবির আহম্মেদ একই প্রতিষ্ঠানে চাকুরীরত সহকারী মহিলা শিক্ষিকা (কৃষি) চাকুরীতে যোগদানের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে নির্যাতন করে আসছে। ওই নারী শিক্ষিকার বাড়ী ভিন্ন জেলায় হওয়ায় পাশাপাশি এখানে তাঁর কোন আত্মীয়-স্বজন না থাকায় লজ্জাবোধ ও আত্ম-সম্মানের ভয়ে এতোদিন বিষয়টি তিনি কাউকে জানায়নি।

সম্প্রতি ওই নারী শিক্ষিকা মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ হাফেজ মাওলানা হাবিব উল্লাহ কাঁচপুরী বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত কমিটি অভিযুক্ত সুপার কবির আহম্মেদকে গত ৪ মার্চ ও ১১ মার্চ দু’দফা নোটিশ প্রদান করলেও তিনি নোটিশের কোন উত্তর দেননি। এতে করে তদন্ত কমিটি শিক্ষিকার অভিযোগের সত্যতা পেয়ে বুধবার ১৭ মার্চ ২০২১ইং থেকে সুপার এ.বি.এম কবির আহম্মেদকে সাময়িক বহিস্কার আদেশ প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে বক্তব্য জানতে বুধবার বিকেলে মাদরাসা সুপার কবির আহম্মেদের (০১৮****৮৮১২১) নাম্বারে বার বার চেষ্টা করেও নাম্বারটি বন্ধ থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করা যায়নি।