ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১

লালমাইয়ে মিথ্যা তথ্য দেয়ায় বিয়ে বাড়িতে বর আটক,পুলিশ কর্তৃক উদ্ধার

প্রকাশ: ২০২১-০৩-০৬ ০৩:১৫:০৭ || আপডেট: ২০২১-০৩-০৬ ০৩:১৫:০৭

লালমাই প্রতিনিধিঃ

লালমাই উপজেলার বেলঘর ইউনিয়নের আজব পুর গ্রামে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিয়ে করতে আসা বরকে আটক করেছে কণের পক্ষ।

ঘটনার বিবরনের জানা যায় কণে সালমা বেগমের ভাই আলমগীরের সাথে ময়মনসিংহ ইশ্বর গঞ্জের উপজেলাস্থ সোহাগি চরপাড়া গ্রামের আবদুল হামিদের ছেলে শফিকুল ইসলাম কুমিল্লার ইপিজেড এলাকায় রাজমিস্ত্রিরা কাজ করতো। সেই সুবাদে তাদের মধ্যে সখ্যতা গড়ে উঠে। সফিকুল ইসলাম পূর্বে বিয়ে করেছিল এবং ঐ বউ তাকে তালাক দিয়ে বিদেশ চলে যায়। এক পর্যায়ে সফিকুল ইসলাম বিয়ে করতে চাইলে কণের ভাই আলমগীর সফিকুল ইসলামের নিকট তার বোনকে বিয়ে দিতে সন্মত হলে চার লক্ষ টাকার কাবিন সাব্যস্ত পূর্বক বিয়ের দিন ধার্য্য করা হয় ।

অদ্য ৫/৩/২০২১ তারিখ ১৫/১৬ জন বরযাত্রি নিয়ে বর আসে। খাওয়া দাওয়া শেষে কাবিন লিখতে গিয়ে বর পক্ষ পূর্বের বিয়ের তালাকনামা দেখাতে ব্যর্থ হলে কণে পক্ষের সাথে কথা কাটাকাটি এবং একপর্যায়ে হাতাহাতির অবস্থা সৃষ্টি হয়।
এমতাবস্থায় বর পক্ষের তিনজন লোক ছাড়া অন্যরা কেটে পড়ে। কণে পক্ষ বরের কাছে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি চেয়ে বরকে আটকিয়ে রাখে।

রাত সাড়ে নয়টার দিকে ৯৯৯ নম্বর থেকে কল পেয়ে লালমাই থানাধীন ভুশ্ছি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম এসে ঘটনার বিবরনাদি লিপিবদ্ধ করে এবং বর ও তিনজন বরযাত্রিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় কণের বাবা ও কণের ভাই আলমগীরকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।