ঢাকা, আজ শনিবার, ১৯ জুন ২০২১

মুরাদনগরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিধবাকে ধর্ষন

প্রকাশ: ২০২১-০২-১৫ ১২:৫০:০৩ || আপডেট: ২০২১-০২-১৫ ১২:৫০:০৩

ফাহাদ রহমান, মুরাদনগর:

কুমিল্লার মুরাদনগরের বাঙ্গরা বাজার থানাধীন চাপিতলা গ্রামে দুই সন্তানের জননী এক বিধবাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষনের অভিযোগে মুজিবুর রহমান(২৫) নামে এক মসজিদের মুয়াজ্জিনকে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। আটককৃত মুয়াজ্জিন উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন খাঁপুড়া গ্রামের মৃত গিয়াস উদ্দিন এর ছেলে।

জানা যায়, ধর্ষণের শিকার বিধবার স্বামী ২০১৬ সালে সাত বছর ও সাড়ে চার বছরের দুটি সন্তান রেখে মৃত্যুবরণ করেন। তারপর ঐ সন্তানদের নিয়ে স্বাভাবিক ভাবে চলছিল তার সংসার। বিগত ২৫ দিন আগে ঐ মহিলা তার সন্তানকে মুক্তব পড়াতে পাশের বাড়ির বাচ্চাদের সাথে ঐ মসজিদের মুয়াজ্জিন মুজিবুরের কাছে মুক্তব পড়তে দেয়। বাচ্চাদের মুক্তব পড়ার সুবাদে মজিবুর রহমান বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ঐ বিধবার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করে। সম্পর্কের একপর্যায়ে গত রবিবার ঐ মহিলা বিয়ের জন্য মজিবুর রহমানকে চাপ দিলে সে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। পরবর্তিতে ঐ মহিলা কোন উপায় না পেয়ে সোমবার সকালে বাঙ্গরা বাজার থানায় এশটি ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের ভিত্তিতে মুয়াজ্জিন মজিবুর রহমানকে আটক করা হয়।

এ বিষয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ধর্ষনের শিকার ঐ মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে মসজিদের মুয়াজ্জিন মজিবুর রহমানকে আটক করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।