ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২

কুমিল্লায় একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন শিরীন আক্তার

প্রকাশ: ২০২২-০৩-২৫ ১২:৫১:৩৯ || আপডেট: ২০২২-০৩-২৫ ১২:৫২:৫০

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

একসঙ্গে চার সন্তান মা হয়েছেন কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপচজলার এক গৃহবধূ। নবজাতকদের মধ্যে তিনজন ছেলে ও একজন মেয়ে। বর্তমানে মাসহ চারজন নবজাতক সুস্থ আছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ওই নারীর চিকিৎসক নাজমা মজুমদার লিরা।

জানা গেছে, চার সন্তানের প্রসূতি শিরিন আক্তার। তিনি উপজেলার চান্দলা ইউনিয়নের চারিপাড়া এলাকার বাসিন্দা। ৮ বছর আগে ২০১৪ সালে তার বিয়ে হয় পাশের শশীদল ইউনিয়নের গঙ্গানগর এলাকার চা বিক্রেতা সাইফুল ইসলামের সাথে। তিনি এখনও চা বিক্রি স্থানীয় একটি বাজারে চা বিক্রি করে পরিবারের ভরনপোষণ যোগান। বুধবার (২৩ মার্চ) প্রসব বেদনা শুরু হলে তাকে কুমিল্লার একটি প্রাইভেট হসপিটালে ডাক্তার নাজমা মজুমদার লিরার তত্তাবধানে ভর্তি করা হয়। পরে বুধবার রাতেই সেখানে ৪ সন্তানের জন্মহয়।

চার সন্তানের বাবা চা বিক্রেতা সাইফুল ইসলাম শুক্রবার দুপুরে বলেন, বিয়ের এক বছর পর আমার একটা মাইয়া হইছে। এখন ৭ বছর পর আমার চার মানিক দুনিয়াত আইছে। এর চাইতে বড় খুশি আমি কেমনে হমু! আমার তিন আব্বা আর এক মার লাইগা সবাইর কাছে দোয়া চাই।

তিনি বলেন, আমি আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করি। কিন্তু আমি খুবই টেনশনে আছি চা বেইচ্চা আমার পাঁচ ছেলে মেয়েরে কেমনে চালামু।

চার সন্তানের দাদি মর্জিনা বেগম বলেন, আমার আগের একটা নাতিন আছে। এবার আরও তিন নাতি আর এক নাতিন দুনিয়াত আইছে। সবাই ভালা আছে। আমি খুবই খুশি আছি। সবাই দোয়া কইরবেন আমার ভাই বোইনের লাইগা।

শুক্রবার দুপুরে ডাক্তার নাজমা মজুমদার লিরা বলেন, আমি প্রথম দিক থেকে চেষ্টা করছিলাম নরমাল ডেলিভারিতে কেসটা সলভ করতে। কিন্তু এই প্রসূতির প্রথম বাচ্চাটার পজিশন ভালো ছিল না। এবং এর আগে উনার সিজার হয়েছে। তাই একরকম বাধ্য হয়ে সার্জারী করতে হয়েছে। আমি তাদের পারিবারিক অবস্থার কথা শুনেছি। আমার পক্ষ থেকে যা যা করা যায় আমি সবই করবো।